ত্রিপুরায় কুকুরের মাংস পাচারের অভিযোগে যুবক গ্রেপ্তার

0
516

কুকুর চুরি, নৃশংসভাবে হত্যা ও অবৈধভাবে মাংস বিক্রির অভিযোগে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের পুলিশ। গতকাল বৃহস্পতিবার তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার হওয়া যুবকের নাম দীপজ্যোতি রায়।

বেশ কিছুদিন ধরেই ত্রিপুরার কুকুরপ্রেমীদের সংস্থা ‘পসম’ অভিযোগ করে আসছিল রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় কুকুর পাচার চক্র সক্রিয়। তবে অভিযোগ করলেও কোনো প্রমাণ ছিল না তাঁদের হাতে। তবে গতকাল হাতেনাতে প্রমাণ পায় সংস্থাটি। সেই প্রমাণের ভিত্তিতেই দীপজ্যোতি রায়কে পুলিশের ধরিয়ে দেয় সংস্থাটি।

পসমের সম্পাদক ঋকদেব দত্ত প্রথম আলোকে বলেন, ‘দীপজ্যোতি নিজেই কুকুর হত্যার সেলফি তুলে ফেসবুকে পোস্ট করেন। ছবিতে দেখা যায়, কুকুরকে দড়ি দিয়ে ঝুলিয়ে নৃশংসভাবে হত্যা করা হচ্ছে। পরে অবশ্য সামাজিক গণমাধ্যম থেকে সেই ছবি তুলে নেওয়া হয়।’

পরে পসমের অভিযোগের ভিত্তিতেই পুলিশ দীপজ্যোতিকে গ্রেপ্তার করে। ঋকদেবের দাবি, আরও অনেকেই কুকুর হত্যাচক্রের সঙ্গে যুক্ত। তাঁরা এ বিষয়ে জনমত গড়ে তুলতে চান।

আগরতলার পশ্চিম কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুব্রত চক্রবর্তী প্রথম আলোকে জানান, নৃশংসভাবে পশুহত্যা, চুরি ও অবৈধভাবে পাচারের অভিযোগে দীপজ্যোতিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আজই তাঁকে আদালতে পেশ করা হবে। ধারণা করা হচ্ছে, রাজ্যে এবং রাজ্যের বাইরেও মিজো ও নাগা অধ্যুষিত এলাকায় কুকুরের মাংস পাচারে একটি চক্র সক্রিয় রয়েছে।

উত্তর-পূর্ব ভারতের বেশ কিছু জায়গায় কুকুরের মাংস খাওয়ার প্রচলন রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here