যে উপায়ে হতাশা কাটাবেন

0
443

অবসাদ তৈরি হয় আমাদের দুশ্চিন্তা, হতাশা আর অসন্তোষ থেকে। চাপ থেকে হতাশা তৈরির সুযোগ থাকে। চাপ মোকাবিলার জন্য নিজেকে সব সময় প্রস্তুত রাখতে হবে। বিপণন ব্যবস্থাপনা বিশেষজ্ঞ সুরাইয়া সিদ্দিকা কর্মক্ষেত্রে হতাশা কাটানোর জন্য কয়েকটি উপায় জানাচ্ছেন।

১. হতাশা অনুভব করুন!

হতাশাকে এড়িয়ে চলার চেষ্টা করি। এই এড়িয়ে চলা বা পালানোর চেষ্টাতেই আরও বেশি হতাশ হয়ে পড়ি। অফিসে হয়তো কাজ ভালো হচ্ছে না কিংবা বসের বকুনির মাত্রা বেশ বেড়ে গেছে—এমন হতাশা এড়ানোর জন্য অভিজ্ঞদের পরামর্শ নিতে পারেন। হতাশাকে মোকাবিলা করুন। পালিয়ে হতাশা থেকে মুক্তি নেই কিন্তু।

২. আপনি কোথায় যাচ্ছেন জানেন তো?

আমরা খুব বেশি হতাশ হয়ে পড়ি যখন বুঝিই না আমরা কী করছি। আপনি যা অর্জন করতে চাচ্ছেন তা কি আপনি নিজে জানেন? একজন বৈমানিক যদি তাঁর গন্তব্যস্থল না জানেন তাহলে কি তিনি গন্তব্যে পৌঁছাতে পারবেন? আপনার লক্ষ্য-গন্তব্য প্রথমে জানুন, তারপর সেই দিকে কাজ করুন।

৩. গোছানো কাজ করুন

সব সময় চেষ্টা করুন গুছিয়ে কাজ করতে। কম সময়ে ভালো কাজ করা যায়।

৪. পরামর্শ নিন

যতই হতাশা বোধ করুন না কেন অভিজ্ঞ কিংবা মনোবিদদের পরামর্শ নিন। নিজে থেকে অনেক সময় হয়তো সমস্যার সমাধান করা যায় না, কিন্তু অভিজ্ঞদের পরামর্শে আপনার সমস্যার জট খুলতে পারে।

৫. ভুল করুন

আপনার হয়তো পদোন্নতি হচ্ছে না কিংবা পেশাজীবনে সামনে এগোতে পারছেন না। ঝুঁকি নিয়ে নিজের গণ্ডির বাইরে কাজ করার চেষ্টা করুন। ভুল হওয়ার ঝুঁকি মেনে নিয়ে কাজ শুরু করুন। কাজ করলে ভুলের আশঙ্কা থাকবেই, ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে আরও সামনে এগোনোর মনোভাব গড়ে তোলা উচিত আমাদের। আর পেশাজীবনের শুরুর দিকে বেশি ভুল করলে আপনার শেখার সুযোগ বেশি থাকে। ভুল থেকে শেখার মানসিকতা গড়ে তুলুন।

৬. আত্মবিশ্বাস নিয়ে কাজ করুন

যা করবেন তা নিজের দায়ে করুন। নিজের দায়িত্ব সম্পর্কে সচেতন হয়ে তারপর কাজ করুন। আপনার ধৈর্য আর আত্মবিশ্বাস আপনার কাজের মান ভালো করতে অনুপ্রেরণা দেবেই।

৭. সময় নিন

যেকোনো কাজ করার আগে সময় নিতে শিখুন। তাড়াহুড়ো করে কোনো কাজ করবেন না। কোনো কাজ শেষ করে কয়েকবার পুনরায় পরীক্ষা করুন, ভুলত্রুটি কমানোর মাধ্যমে কাজের মান ভালো করা যায়।

৮. নিজেকে পুরস্কৃত করুন

আপনি হয়তো রাতের পর রাত জেগে কাজ করে যাচ্ছেন। অথচ পুরস্কার বা পদোন্নতি জুটছে না। এমন অবস্থায় হতাশা এড়ানোর জন্য নিজেকে নিজে পুরস্কৃত করতে শিখুন। জীবনে এগিয়ে যাওয়ার জন্য নিজেকে নিজে উৎসাহ দিতে শিখুন। নিজের জন্য বই কিনতে পারেন, কিংবা অফিসের ডেস্কে ছোট্ট অ্যাকুরিয়ামে মাছ চাষ করতে পারেন। অন্যরা কে কী ভাবছে আপনাকে নিয়ে, তা না ভেবে কাজের দিকে মনোযোগ দিন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here