শাকিব খান ভারতের নায়ক!

0
312

ভারতের কলকাতায় যখন থেকে শাকিব খানের ছবি মুক্তি পায়, তখনই সেখানে অনেক নায়ক-নায়িকা এবং পরিচালক-প্রযোজক বাংলাদেশের জনপ্রিয় এই নায়ককে নিয়ে আশাবাদী হয়ে ওঠেন। অনেকেই তো ভারত ও বাংলাদেশের গণমাধ্যমে শাকিবকে নিয়ে খোলামেলা প্রশংসা করতে কার্পণ্য করেনি। এবার তো ভারতের বিভিন্ন প্রেক্ষাগৃহে শাকিব খানের অভিষেক ঘটেছে সে দেশের নায়ক হয়ে। আজ শুক্রবার কলকাতার ৯১টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে শাকিব খানের ‘চালবাজ’ ছবিটি। প্রথম আলোকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ছবির পরিচালক জয়দীপ মুখার্জি।

দুই বছর আগে বাংলাদেশ ও ভারতের যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত ছবি ‘শিকারি’তে অভিনয় করে সবাইকে চমকে দেন শাকিব খান। এরপর ভারতের কলকাতাসহ পশ্চিমবঙ্গের দর্শকদের কাছে শাকিবের চাহিদা তৈরি হয়। যৌথ প্রযোজনার বাইরে কলকাতার একক ছবি হিসেবে ‘চালবাজ’ শাকিবের প্রথম মুক্তিপ্রাপ্ত ছবি। তাই ছবিটি নিয়ে সেখানে দর্শকদের মধ্যে বাড়তি আগ্রহ তৈরি হয়েছে বলে জানান নির্মাতা। তবে শাকিব আশা করেছিলেন, বাংলাদেশ আর ভারতের কলকাতায় যেন একই দিনে ছবিটি মুক্তি পায়। তা না হওয়ায় বিরক্ত হয়েছেন জনপ্রিয় এই নায়ক।

প্রথম আলোকে শাকিব খান বলেন, ‘দুই বছর হয় আমি যৌথ প্রযোজনার ছবিতে কাজ করছি। তার আগে বাংলাদেশের অনেকে যৌথ প্রযোজনার ছবিতে কাজ করেছেন। যখনই আমার কোনো ছবি মুক্তির সময় হয়, তখনই দেখি নানা ঝামেলা ও নিয়মনীতির দোহাই শুনি। এসব দেখে মনে হয়, তাহলে কি শুধু শাকিব খানের যৌথ প্রযোজনার ছবিতে কাজ করাতে সমস্যা! কিছুদিন আগেও কিন্তু বাংলাদেশের প্রেক্ষাগৃহে কলকাতার “জিও পাগলা”, “ইন্সপেক্টর নটি কে”সহ বেশ কিছু ছবি মুক্তি পেয়েছে, তখন কেউ তা নিয়ে কথা বলেনি। আমি দুই দেশে সমানতালে সম্মান নিয়ে কাজ করছি, বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করছি—তাহলে এটা আমার জন্য কাল! এভাবে তো একটা দেশের চলচ্চিত্রশিল্প এগোতে পারবে না।’

শাকিব খান আরও বলেন, ‘সবাই মিলে ভালো চলচ্চিত্র দিয়ে প্রেক্ষাগৃহ টিকিয়ে রাখতে হবে। প্রায়ই শুনি, একের পর এক প্রেক্ষাগৃহ শুধু বন্ধ হচ্ছে, যা আমাদের জন্য গভীর উদ্বেগের। দুই দেশে ভালো কিছু ছবিতে কাজ করার চেষ্টা করছি।’

বাংলাদেশের তথ্য মন্ত্রণালয়ে আমদানির অনুমতি পেতে দেরি হওয়ায় ভারতে আগে মুক্তি পেয়েছে ‘চালবাজ’। ছবিটি প্রযোজনা করেছে ভারতের এসকে মুভিজ। ভারত থেকে ছবিটি বাংলাদেশের দর্শকদের জন্য আমদানি করছে এনইউ আহাম্মদ ট্রেডার্স। এ প্রতিষ্ঠানের কর্ণধার এবং চলচ্চিত্র প্রযোজক কামাল মোহাম্মদ কিবরিয়া বলেন, ‘বাংলাদেশের দর্শক “চালবাজ” ছবিটি দেখার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে। আমরা এরই মধ্যে সেন্সর ছাড়পত্রের জন্য জমা দিয়েছি। আশা করছি, সোমবার ছাড়পত্র পেয়ে যাব। ইচ্ছে আছে, ২৭ এপ্রিল বাংলাদেশের দর্শকদের ছবিটি দেখানোর ব্যবস্থা করার। সেভাবেই সবকিছুর প্রস্তুতি নিচ্ছি।’

বাংলাদেশের কটি প্রেক্ষাগৃহে ছবিটি মুক্তি দেওয়ার ইচ্ছে আছে? কামাল মোহাম্মদ কিবরিয়া বলেন, ‘সময়টা এখন খুব একটা ভালো যাচ্ছে না। আবার সামনে রোজা শুরু হয়ে যাচ্ছে। তবে বাছাই করা ৮০টি প্রেক্ষাগৃহে ছবিটি মুক্তির পরিকল্পনা আছে।’

‘চালবাজ’ ছবিতে শাকিব খানের বিপরীতে অভিনয় করেছেন কলকাতার শুভশ্রী। এই ছবির অন্য অভিনয়শিল্পীরা হলেন বাংলাদেশের শাহেদ আলী, রেবেকা, সুব্রত, কলকাতার আশিষ বিদ্যার্থী, খরাজ মুখোপাধ্যায়, রজতাভ দত্ত প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here